ফের মাস্ক পরাকে বাধ্যতামূলক করল যুক্তরাজ্য

ফের মাস্ক পরাকে বাধ্যতামূলক করল যুক্তরাজ্য

আন্তর্জাতিক
করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন নিয়ে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ বাড়ছে। যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ধরন শনাক্তের পর দেশটি বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পথে হাঁটছে। এরই মধ্যে জনসমাগমস্থলে মাস্ক পরাকে ফের বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যা আগামী সপ্তাহ থেকে কার্যকর হবে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এ কথা বলেছেন। খবর বিবিসির।

এক সংবাদ সম্মেলনে বরিস জনসন বলেছেন, ‘দোকান, শপিং মল, গণপরিবহনে বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। আগামী তিন সপ্তাহ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হবে।’

শুধু মাস্ক পরা নয় আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য পিসিআর টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বরিস জনসন বলেন, বিদেশি যাত্রীরা যুক্তরাজ্যে প্রবেশের পরপরই তাদের বাধ্যতামূলক পিসিআর টেস্ট করতে হবে এবং তাদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ না আসা পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকতে হবে। এমনকি যারা সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নিয়েছেন তাদেরও এই নিয়মের মধ্য দিয়ে যেতে হবে।’

তবে সংবাদ সম্মেলনে কিছুটা আশার বাণীও শুনিয়েছেন জনসন। তিনি বলেছেন, গত বছরের চেয়ে এবারের বড়দিন ‘যথেষ্ট ভালো’ হবে। করোনার ওমিক্রন ধরনের জন্য যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা ‘অস্থায়ী এবং সতর্কতামূলক’।

উল্লেখ্য, এর আগে যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জোভেদ করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত দুই ব্যক্তির শনাক্ত হওয়ার খবর জানান। বরিস জনসন সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘এই ওমিক্রন ধরন টিকার কার্যকারিতা কমিয়ে দিতে পারে।’

Hits: 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *