‘হাবিবি’ নিয়ে হাজির ফারিয়া

‘হাবিবি’ নিয়ে হাজির ফারিয়া

বিনোদন
‘পটাকা’ এবং ‘আমি চাই থাকতে’ গানের পর এবার নিজের গাওয়া তিন নম্বর গান নিয়ে হাজির হলেন চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। এবারের গানের নাম ‘হাবিবি’। আজ কলকাতার অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসভিএফ’র ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রকাশ হবে। অডিও তো বটেই এবারের ভিডিওতেও রয়েছে নানা চমক। ফারিয়া অন্যরকম সাজ-পোশাকে এখানে উপস্থাপিত হয়েছেন।

গ্ল্যামারার্স এই গানের কোরিওগ্রাফিও করা হয়েছে ভিন্নরূপে। কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন ভারতের বাবা ইয়াদব। ‘হাবিবি’ গানটির কম্পোজিশন করেছেন আদিব।আর গানটির গীতিকার ও কো-কম্পোজার হিসেবে ছিলেন নূর নবী। গানটির ভিডিওতে অনেকটাই রানীর বেশে দেখা গেছে ফারিয়াকে। গান প্রকাশের আগে এর টিজার প্রকাশ হয়েছে কদিন আগে। গ্ল্যামারার্স নুসরাত ফারিয়াকে আবিষ্কার করা গেছে এখানে। আন্তর্জাতিক মানের একটি গান করার চেষ্টাই দেখা গেছে।

নুসরাত ফারিয়া নিজেও গানটি নিয়ে আশাবাদী। প্রথম গান ‘পটাকা’ দিয়ে বেশ বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন এ অভিনেত্রী। কিন্তু সমালোচনায় দমে যাননি তিনি। প্রকাশ করেন নিজের দ্বিতীয় গান ‘আমি থাকতে চাই’। এবার এ গানটির মাধ্যমে সমালোচনার জবাব দেন তিনি। গানটি ভারত ও বাংলাদেশের দর্শক শ্রোতদের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়। অডিওর পাশাপাশি ভিডিওতে অনবদ্য পারফরমেন্স করেন ফারিয়া।

এবার তিন নম্বর গানটি নিয়ে নুসরাত ফারিয়া বলেন, এসভিএফ’র সঙ্গে এটি আমার হ্যাটট্রিক। আমি উদগ্রীব হয়ে আছি গানটির সাড়া দেখতে। এটা অ্যারাবিক ফিউশন পপ টিউনের একটা গান। গানটা আইটেম সং ঢঙে সুর করা হয়েছে। আমরা মুম্বইয়ের একটা মহলে শুটিং করেছি। আমি বলবো যে, এটা আমার সবচেয়ে বিলাসবহুল একটা মিউজিক ভিডিও।

কোনো রকম কার্পণ্য করিনি, যতটা পেরেছি ততটাই সুন্দর করে করার চেষ্টা করেছি। মুম্বইতে আমরা শুট করেছি ১৪ই নভেম্বর এবং তার একদিন পরে আমার পরীক্ষা ছিল। শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা অসাধারণ। আমি গান করেছি বাংলাদেশি, মিউজিক কম্পোজিশন ও লেখা বাংলাদেশি, গানের মিউজিক ভিডিও পরিচালনা করেছে ভারতীয় টিম, গানটি প্রডিউস হয়েছে কলকাতা থেকে আর মিক্সিং-মাস্টারিং হয়েছে কানাডাতে।

ফারিয়া আরও বলেন, আগের দুটি গান পপ ঘরানার কিন্তু হাবিবি গানটি অ্যারাবিক ফিউশন। একটা স্লো নাম্বার থেকে কীভাবে একটা গান ডান্স নাম্বারে কনভার্ট হয় সেই মজাটা হাবিবিতে পাওয়া যাবে। আশা করছি ভালো লাগবে শ্রোতা-দর্শকদের।

Hits: 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *