স্বামীর বিরুদ্ধে সারিকার মামলা

স্বামীর বিরুদ্ধে সারিকার মামলা

বিনোদন
যৌতুক দাবি ও মারধরের অভিযোগে অভিনেত্রী সারিকা সাবরিন তার স্বামী জি এস বদরুদ্দিন আহমেদের (রাহী) বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন রাহী বরাবর। সোমবার (২৮ নভেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দার আদালতে সারিকা সাবরিন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন, এরপর মামলাটি আমলে নিয়ে বদরুদ্দিন আহমেদ রাহীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। গ্রেফতার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২১ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। সারিকার আইনজীবী মাসুদুর রহমান মাসুদ বিষয়টি জানিয়েছেন। মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে সারিকা ও বদরুদ্দিনের বিয়ে হয়।

বিয়েতে ২০ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করা হয়। বিয়ের সময় সারিকার বাবা-মা বদরুদ্দিনকে ২৫ লাখ টাকার স্বর্ণালংকারসহ বাসার যাবতীয় আসবাবপত্র উপহার হিসেবে দেন। বিয়ের কিছু দিন যেতে না যেতেই আসামি বদরুদ্দিন বাদী সারিকার পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে তাকে মারধর করতে থাকে।

গত ৫ নভেম্বর আসামি বদরুদ্দিন ভিকটিম সারিকার কাছে ৫০ লাখ টাকা যৌতুকের টাকা এনে দিতে বলে। যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় সারিকাকে এক কাপড়ে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।
এর আগে ১৯ নভেম্বর ঢাকার ধানমন্ডিতে এ বিষয়ে এক সালিশ বৈঠক হয়। বৈঠকে কথোপকথনের একপর্যায়ে আসামি বলেন ব্যবসার জন্য তাকে ৫০ লাখ টাকা দিতে হবে।

দাবি করা টাকা না দিলে সারিকার সঙ্গে সংসার করবে না এবং তাকে তালাক দিয়ে বেশি টাকা যৌতুক নিয়ে অন্যত্র বিয়ে করবেন বলে দ্রুত চলে যান। চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে সারিকা-বদরুদ্দিনের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এটি সারিকার দ্বিতীয় বিয়ে।

Hits: 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *