টাইগারদের দায়িত্ব ছাড়ছেন গিবসন

টাইগারদের দায়িত্ব ছাড়ছেন গিবসন

খেলাধুলা
আগামী ২০শে জানুয়ারি বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ওটিস গিবসনের। ক্যারিবীয় বোলিং কোচ নতুন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে চুক্তি নবায়নে আগ্রহী নন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

বাংলাদেশের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড সফরে রয়েছেন গিবসন। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ব্যাটার-বোলাররা ভালো করলেও ক্রাইস্টচার্চে সাদা পোশাকে বর্ণহীন ছিল টাইগারদের পারফরম্যান্স। বাংলাদেশের বোলারদের পাত্তাই দেয়নি কিউই ব্যাটাররা। নিজেদের প্রথম ইনিংসে টাইগারদের বেধড়ক পিটিয়ে ৫২১ রান তুলে নেয় স্বাগতিকরা। কিউইদের পাহাড়সম সংগ্রহের নেপথ্যে টাইগার বোলারদের দায় স্বীকার করেন গিবসন। তবে ব্যর্থতার জন্য নয়; চুক্তির মেয়াদ না বাড়ানোর কারণ হলো গিবসন খুঁজে নিয়েছেন নতুন ঠিকানা।

ইতিমধ্যেই পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) দল মুলতান সুলতানসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ না বাড়ানো প্রসঙ্গে গিবসন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার পিএসএলে যাওয়াটা নিশ্চিত। বিসিবির সঙ্গে আমার চুক্তি এ মাসেই শেষ হচ্ছে।’ গিবসন এখন নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে রয়েছেন। সেখানে জাতীয় দলের পেসারদের সঙ্গে এক নৈশভোজে নিজের চুক্তি নবায়ন না করার বিষয়টি জানান গিবসন। নিউজিল্যান্ড থেকে আগামী ১৫ই জানুয়ারি দেশে ফিরবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে দলের সঙ্গে ফিরছেন না কোচরা। অন্য বিদেশি কোচরা যাবেন পরিবারের কাছে, আর গিবসন পাকিস্তানে।

আগামী ২৭শে জানুয়ারি থেকে শুরু হবে পিএসএলের সপ্তম আসর। গিবসনকে দলে নিয়োগ দেয়ার বিষয়ে মুলতান সুলতানস এক বিবৃতিতে জানায়, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী কোচ, দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রধান কোচ, ইংল্যান্ড এবং বাংলাদেশের সাবেক বোলিং কোচ ওটিস গিবসন মুলতান সুলতানসে সহকারী কোচ ও ফাস্ট বোলিং কোচ হিসেবে যোগ দিচ্ছেন।’

গিবসন বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচের দায়িত্ব নেয়ার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান কোচ ছিলেন। তার অধীনই ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর ২০১৫ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডের বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান কোচ ছিলেন ২০১৭ থেকে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত।

Hits: 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *