আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে রাষ্ট্রকে স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছানো : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে রাষ্ট্রকে স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছানো : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

বাংলাদেশ
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আমাদের সম্মিলিত লক্ষ্য হচ্ছে রাষ্ট্রকে স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছানো।তিনি বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করছি। জাতির জনকের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন করছি। আমাদের স্বপ্ন হচ্ছে ২০৪১ সালে দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করা। আমরা এমন একটি দেশ গড়তে চাই যেখানে থাকবে না কোন দারিদ্রতা।’

গতকাল শুক্রবার জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত ‘জেসিআই টয়োপ-২০২১’ বিশেষ তরুণ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
কক্সবাজারের ইনানী সৈকতে একটি হোটেলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের তরুণ উদ্যোক্তারা নৈতিক নেতৃত্বের দুর্দান্ত উদাহরণ তৈরি করে আসছে। ব্যবসা, বৈজ্ঞানিক প্রচেষ্টা বা সমাজে তাদের কার্যক্ষেত্র যাই হোক না কেন, এই তরুণরা স্থানীয় এবং বিশ্বব্যাপী চ্যালেঞ্জ গুলোকে সুযোগে পরিণত করে চলেছে। এই তরুণদের হাত ধরেই আমরা স্বপ্নের দেশ বাস্তবায়ন করতে চাই।

তিনি বলেন, আমাদের তরুণদের মধ্যে ‘ইলেকট্রো-ম্যাগনেটিক ফোর্স’ তৈরি করতে হবে। এই তরুণরাই সম্মিলিতভাবে কাজ করে আগামীর বাংলাদেশ তৈরি করবে। তিনি তরুণদের প্রতি মানবিক মূল্যবোধ চর্চা এবং মানবিকতার চর্চা করার আহবান জানান।

জেসিআই বাংলাদেশ প্রতি বছর ৪০ বছরের কম বয়সী ১০ জন বিশেষ তরুণকে সম্মাননা দিয়ে আসছে। প্রতি বছরের মতো এবারও ১০ জন আউট স্ট্যান্ডিং তরুণকে পুরস্কার প্রদান করেছে। প্রথমবারের মতো কক্সবাজারে অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্টিত হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন,কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুন সরওয়ার কমল, কক্সবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, জেসিআই জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এরফান হক ও লিসা জাহান, জাতীয় মহাসচিব রুমানা চৌধুরী, জাতীয় সহ-সভাপতি মাহমুদ-উন-নবী প্রমূখ।

জেসিআই বাংলাদেশের ২০২১ সালের জাতীয় সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন।

এ বছর টয়োপ-২০২১ পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন- আইনি বিষয়ে অসামান্য অবদানের জন্য ব্যারিস্টার ইফতেখার জোনায়েদ, মানবিক নেতৃত্বে তাজদীন হাসান, অর্থনীতিবিদ ড. আশিকুর রহমান, প্রযুক্তিগত উন্নয়নে মনির হোসেন, উদ্যোক্তা অর্জনে জিয়া আশরাফ, ব্যবসায়িক সাফল্যে আসিফ জহির, একাডেমিক কৃতিত্বে প্রকৌশলী মেহেদী হাসান, ব্যক্তিগত কৃতিত্বে সাশীন মাসুদ হাসান, রাজনৈতিক বিষয়ে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম, ব্যক্তিগত কৃতিত্বে আল-শাহরিয়ার আহমেদ।

উল্লেখ্য, জেসিআই ১৮-৪০ বছর বয়সী তরুণ নেতাদের একটি বিশ্বব্যাপী সংগঠন। যারা নিজেদের এবং বিশ্বের ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে নিবেদিত। ১০৫টি দেশে দেড় লাখের বেশি এই সংগঠনের সক্রিয় সদস্য রয়েছে।

Hits: 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *